Main Menu

ছাতকে দিঘলী সুপারলীগে বেরাজপুর হ্যারিকেন্সকে হারালো মাধবপুর স্টার্স

ছাতক প্রতিনিধিঃ

ছাতকে বৃহত্তর দিঘলী এলাকাবাসীর উদ্যোগে শুরু হয়েছে দিঘলী সুপারলীগ। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার গোবিন্দগঞ্জ পুরাতনবাজার সংলগ্ন মাধবপুর মাঠে এ দিঘলী সুপারলীগের আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য আবদুস শহিদ মুহিত।

এসময় সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি বাবু তাপস দাশ পুরকায়স্থ, বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, দৈনিক সিলেটের ডাকের গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধি বদর উদ্দিন আহমদ, দৈনিক ইনকিলাব ও দৈনিক শ্যামল সিলেট পত্রিকার ছাতক উপজেলা প্রতিনিধি কাজি রেজাউল করিম রেজা, জাতীয় দৈনিক আমার সংবাদ পত্রিকার ছাতক উপজেলা প্রতিনিধি মোশাহিদ আলী, সুনামগঞ্জ জেলা অটো টেম্পু অটো রিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি আপ্তাব উদ্দিন, ইউপি সদস্য সামছুল হক, সমাজসেবক মুহিতুল ইসলাম চৌধুরী, সিলেট মহানগর যুবলীগ নেতা ফজল মাহবুব সনেট, সুনামগঞ্জ জেলা হিউম্যান হুলার শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আছবর আলী, ব্যবসায়ী রুমেল আহমদ, হাসান মাহমুদ বিরহাম, রামপুর সিক্সার্সের সেক্রেটারী মো. তপু, মাঝপাড়া হিটার্সের অন্যতম উপদেষ্ঠা মাছুম আহমদ, সভাপতি রশিদ আহমদ, টিম ম্যানেজার মাঈনুদ্দিন, সিনিয়র প্লেয়ার সাহেদুজ্জামান লিয়ন, বেরাজপুর হ্যারিকেন্সের টিম ম্যানেজার আজির উদ্দিন, খোজার পাড়া ট্রাইকার্সের সভাপতি রবিউল হাসান, চাকল পাড়া ওয়ারিয়র্সের সেক্রেটারী ফয়েজ আহমদ, মাধবপুর স্টার্স এর টিম ম্যানেজার লায়েক আহমদ প্রমূখ।

মাধবপুর স্টার্স ও বেরাজপুর হ্যারিকেন্স এর মধ্যে উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। টসে জিতে ব্যাট করতে মাঠে নামেন মাধবপুর স্টার্স। নির্ধারিত ১৬ অভারে তারা ৮ উইকেটে ১৯২ রান তুলে। একমাত্র ৭৩ রান করেন সুমন আহমদ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বেরাজপুর হ্যারিকেন্স সব উইকেট হারিয়ে ১২০ রান করে পরাজয় বরণ করেন। ম্যান অব দ্যা ও সিক্সার অব দ্যা ম্যাচ হিসেবে নির্বাচিত হন মাধবপুর স্টার্সের খেলোয়ার সুমন আহমদ। ক্যাচ অব দ্যা ম্যাচ হয়েছেন বেরাজপুর হ্যারিকেন্স এর দিলু হোসেন। স্মার্ট প্লেয়ার অব দ্যা ম্যাচ হয়েছেন বেরাজপুর হ্যারিকেন্স এর খেলোয়ার ফয়ছল আহমদ। শুরুতে দিঘলী সুপারলীগের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মাধবপুর স্টার্স এর সভাপতি সোহেল আহমদ।

আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন, সুলতান মাহবুব ও অমিত মালাকার। ম্যাচ অফিসিয়ালের দায়িত্বে ছিলেন জাসিম ফারহান, রেদ্বওয়ান আহমদ, মারওয়ান আহমদ ও সাব্বির আহমদ ইমন। স্কোরার হিসেবে ছিলেন নোমান আহমদ, সহযোগি আহসানুল করিম রাজন। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন, আলেক মিয়া, লাল আমিন, এমরান আহমদ, জুয়েল আহমদ, রাসেল আহমদ, জালাল উদ্দিন, সেলিম উদ্দিন, হুমায়ূন, রুহুল আমীন ও রায়হান আহমদ।

উল্লেখ্য, প্রায় ১২৫জন ক্রিকেটার নিয়ে গঠিত হয় রামপুর সিক্সার্স, বেরাজপুর হ্যারিকেন্স, মাধবপুর স্টার্স, মাঝপাড়া হিটার্স, চাকল পাড়া ওয়ারিয়র্স ও খোজার পাড়া ট্রাইকার্স। এ ৬টি দলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দিঘলী সুপারলীগ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *