1. admin@bijoyer-alo.com : admin :
  2. babul01713@gmail.com : Babul :
  3. videomidea.kabir@gmail.com : Kabir :
  4. armanik76@gmail.com : Manik :
  5. mdmohaiminul77@gmail.com : Mohaiminul :
  6. reza.s061@gmail.com : S Reza :
  7. md.sazu4@gmail.com : Sazu :
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
নারায়ণগঞ্জে কভার্ডভ্যান এর চাপায় নারী শ্রমিক নিহত চাঁদপুরে মোঃআব্দুল্লাহ জুয়েল নামে এক মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ ডোমার-ডিমলা এলাকার সাধারণ মানুষের পাশে থেকে উন্নয়ন করতে চান সুমি। কালিগঞ্জে মানবতার কল্যাণ ফাউন্ডেশনের ব্লাড ডোনেশন গ্রুপের উদ্বোধন দেবহাটা প্রেসক্লাব নের্তৃবৃন্দকে জিএম সৈকতের শুভেচ্ছা দেবহাটার নবাগত ইউএনওকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানালেন ইউপি সচিবগন মহানবীকে নিয়ে ব্যাঙ্গচিত্র করায় দেবহাটায় বিক্ষোভ, ফ্রান্স প্রধানমন্ত্রী কুশপুত্তলিকা দাহ দেবহাটায় মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে নবাগত ইউএনও’র সাথে মতবিনিময় দেবহাটা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের সাথে ইউএনও তাছলিমার মতবিনিময় দেবহাটায় ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় ভিকটিমের স্বজনদের পিটিয়েছে বখাটের পরিবার

ডোমারে দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পরে এলাকার অনেক শিক্ষক দিশেহারা।

স্টাফ রিপোর্টার>>
  • মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ২২

নীলফামারীর ডোমারে দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পরে পড়ে এলাকার অনেক শিক্ষক দিশেহারা হয়ে পড়েছে। পাওনা টাকার চেয়েও তিনগুন টাকা পরিশোধ করার পড়েও শিক্ষকদের নানা ভাবে মামলা মোকোদ্দমা দিয়ে হয়রানি করছে বলে একাধিক শিক্ষক অভিযোগ করেন। এ বিষয়ে আজিজুল ইসলাম নামে এক শিক্ষক ২৩/০৯/২০২০ ইং তারিখে দাদন ব্যবসায়ী অলিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের পূর্ব সোনারায় হাজীপাড়া গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে দাদন ব্যবসায়ী অলিয়ার রহমান (৪০) উপজেলা বিভিন্ন এলাকার অর্থশতাধীক স্কুল শিকককে দাদনের টাকা প্রদান করে ব্যাংকের চেক ও স্ট্যাম্প হাতিয়ে নেয়। ২/১ বছরে প্রদানকৃতৃ টাকার দ্বিগুন অথবা তিনগুন টাকা পরিশোধ হওয়ার পরেও চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত না দিয়ে আবারো টাকা ফেরত চেয়ে গ্রামের সহজ সরল শিক্ষকদের বিভিন্ন ভয় ভীতি ও মামলার হুমকি দিয়ে আসছে বলে মৌজা গোমনাতী সপ্রাবি শিক্ষক রাজ কুমার জানান। একই স্কুলের আরেক শিক্ষক ধীরেন্দ্র নাথ রায় বলেন, আমি অলিয়ারের কছে আমার কন্যার বিয়ের সময় ১লক্ষ টাকা নেই। প্রতি মাসে ১০ হাজার করে দিয়ে ২ বছরে প্রায় ২লক্ষ ৪০ হাজার টাকা প্রদান করি। এর পরেও আমার চেক ও স্ট্যাম্প ফেরত না দিয়ে পূনরায় ১লক্ষ টাকা দাবী করে। টাকা না দিলে যে কোন সময় রাস্তা ঘাটে আমার হোন্ডা কেড়ে নিবে বলে হুমকি প্রদান করে । আমি তার ভয়ে ভীষন আতংকে দিনাতিপাত করছি।

অপরদিকে গোমনাতী এলাকার শক্তিনাথ রায়, শেফালী বেগম সহ একাধীক শিক্ষক অলিয়ারের দাদনের টাকা নিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে। অপরদিকে জামিরবাড়ি সপ্রাবি সহকারী শিক্ষক আজিজুল ইসলামের বিরুদ্ধে অলিয়ার তার আপন ভগ্নিপতিকে দিয়ে দিদেশ যাওয়ার নাম করে টাকা লেনদেনের বিষয়ে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। এ বিষয়ে অলিয়ার রহমান জানান, ধীরেন, রাজ কুমার, শক্তিনাথ, শেফালী মাস্টারকে আমি চিনি না, তবে আজিজুল মাষ্টার আমার ভগ্নিপতি রফিকুলকে বিদেশ পাঠানোর জন্য ৮লক্ষ টাকা নেয় এবং টাকা ফেরত না দেয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেছি।

নিউজটি পছন্দ হলে শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরও খবর পড়ুন

আজকের দিনপঞ্জিকা