Main Menu

ঠাকুরগাঁওয়ে মৌসুমের প্রথম কালবৈশাখীতে যেন মরার ওপর খাঁড়ার ঘা

এ মৌসুমে কালবৈশাখী ঝড়ের প্রথম ছোবলে ঠাকুরগাঁওয়ে ফসলসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। বুধবার (১৫ এপ্রিল) তখন সকাল সাড়ে ৮টা। প্রথমে কালো মেঘে আকাশ ছেয়ে যায়। তারপর শুরু হয় শুকনো ঝড়। এমনিতে এ জেলার মানুষের মনে অজানা ভয় বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস নিয়ে।

এরই মধ্যে শুরু হয় ঝড়। এরপর বৃষ্টিসহ ঝড় প্রায় ঘণ্টাব্যাপী স্থায়ী হয়। ফসলসহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে করে করোনা আতঙ্কে থাকা ঠাকুরগাঁওয়ের মানুষ আরেকটি বিপদের মুখে পড়েছে। একে তো করোনার কারণে জেলা প্রশাসন ঘোষিত লকডাউনের কারণে মানুষ। এমনিতে গৃহবন্দি হয়ে খাদ্য সংকটে পড়েছেন, তার ওপর এ মৌসুমী দুর্যোগ যেন মরার ওপর খাঁড়ার ঘা।

এতে করে ইরি-বোরো ক্ষেত, পটল, করলাসহ সমসাময়িক শাকসবজির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ে পড়েছে আমের মুকুল। কোনো কোনো স্থানে ঝড়ে গাছ উপড়ে পড়ার খবরও পাওয়া গেছে। এ সময় বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৈশাখী ঝড়ে বিভিন্ন ইউনিয়নে ফসলি জমিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। কাঁচা ঘরবাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *