Main Menu

করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ায় অনলাইনে পাঠদান চালিয়ে যাচ্ছে বায়তুল হিকমাহ মাদরাসা

করোনা সংক্রমণ এড়াতে এবং জনসমাগম দূরত্ব বজায় রাখতে সরকার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ দিলেও শিক্ষার্থীদের পাঠদান উন্নয়নের লক্ষ্যে অনলাইনে পাঠদান চালিয়ে যাচ্ছে বায়তুল হিকমাহ মাদরাসা।

সরকারী নিদের্শ মোতাবেক সকল শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। অথচ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রতিটি শিক্ষার্থীদের চলমান রয়েছে শিক্ষা কার্যক্রম। প্রতিষ্ঠান ছুটি ও বন্ধ ঘোষনার পূর্বে বাড়ীর কাজ ও পরীক্ষার পূর্ব প্রস্তুতির জন্য সিলেবাস প্রদান করে অত্র মাদরাসা’র শ্রেনি শিক্ষকরা। শিক্ষকদের দেয়া সিলেবাসে শিক্ষার্থীরা বাসা-বাড়ীতে পড়ছে কি না তা মোবাইল ফোনে নিয়মিত খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

বিষয় ভিত্তিক শিক্ষক ও শ্রেনি শিক্ষকরা নিজ নিজ দায়িত্বে পড়া আদায় হচ্ছে কিনা তা ও তদারকি করছেন। এতে স্বাভাবিক পড়া-লেখা ঠিক রাখতে সক্ষম হচ্ছে প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বরত শিক্ষকরা। ব্যতিক্রম এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে অভিভাবকগন। তারা বলছেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের সন্তানরা যেখানে খেলা-ধুলা কিংবা অন্যভাবে সময় কাটাতো কিনতু শিক্ষকদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তদারকি থাকায় তারা শ্রেণি কক্ষের মতো বাসায় বসে নিয়মিত পাঠ ঠিক রাখছে। এতে খুশি অভিভাবকরাও।

অত্র মাদরাসা’র অধ্যক্ষ মাওলানা রশিদ আহমদ শাহীন বলেন, বর্তমানে মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদান্ত নিয়েছে। তারই আলোকে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ দেয়া হয়। তবে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও আমাদের পাঠদান কিন্তু চলছে। প্রত্যেক শিক্ষকদের নির্দেশনা দেয়া আছে যে, শ্রেনি শিক্ষকরা যার যার বিষয় পাঠদান করাতো তারা ওই শ্রেনির শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে খোঁজ-খবর নিবে এবং পড়া দিবে, পরীক্ষার প্রস্তুতিসহ বিভিন্ন সিলেবাস দিবে।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা যেন বাসায় থেকে তাদের পড়ার মান ধরে রাখে এবং বন্ধ হওয়া ক্লাশের পরিবর্তে বাসায় থেকেই পড়াশুনা করবে। বায়তুল হিকমাহ ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম এর চেয়ারম্যান মাওলানা মুফতি ওমর সাঈদ বলেন, স্বাভাবিক পড়া-লেখার মান ঠিক রাখতে আমরা ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নিয়েছি।

শিক্ষার্থীদের মানোন্নয়নের কথা বিবেচনা করে বায়তুল হিকমাহ মাদরাসা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। তাদেরকে বাহিরে বের না হয়ে বাসায় নিরাপদে থাকার পরমার্শ দেন এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন চলার পাশপাশি ৫ ওয়াক্ত নামাজ, পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত, নফল ইবাদত পালন করার মাধ্যমে মহান আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লার সন্তুষ্টি লাভের জন্য প্রিয় শিক্ষকমণ্ডলী, অভিভাবক সহ দেশবাসীর জন্য দোয়া করতে তিনি নির্দেশনা প্রদান করেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *